মোটরসাইকেল না পেয়ে যুবকের আত্মহত্যা

মোটরসাইকেল না পেয়ে নাহিদ হাসান সোহাগ (২৬) এক যুবক আত্মহত্যা করছে।নাহিদ হাসান সোহাগের বাবা বাংলাদেশ পুলিশের খুলনার খানজাহান আলী থানার এসআই আনোয়ার হোসেন।আজকে শুক্রবার সকালে ভাড়া বাসা থেকে নাহিদের লাশ উদ্ধার করা হয়।নাহিদের পরিবারের সদস্যরা জানিয়েছে নতুন মোটর সাইকেল না পাওয়ার কারনেই নাহিদ আত্মহত্যার পথ বেছে নিয়েছে।

আড়ংঘাটা থানার ওসি কাজী রেজাউল করিম বলেন,নতুন বছরের শুরুর দিনে পরিবারের কাছে একটি নতুন মোটর সাইকেলের আবদার করেছিল নিহত নাহিদ।কিন্তু তার পরিবার তার সেই আবদার না রাখতে পারায় গতকাল (বৃহস্পতিবার) রাত ১১ টায় পরিবারের সদস্যদের সাথে ঝগড়া করে অভিমানের সহিত তার নিজের ঘরে ঘুমাতে যান।

শুক্রবারে সকালে তার পরিবারে সদস্যরা তার কোন সাড়া-শব্দ না পেলে ঘরের দরজা ভেঙ্গে তার ঘরে প্রবেশ করলে পরিবারের সদস্যরা নাহিদের লাশ দেখতে পেয়ে পুলিশকে খবর দেয়।

আড়ংঘাটা থানার ওসি কাজী রেজাউল করিম আরও জানান,নাহিদের পরিবারের সদস্যদের আবেদনের পেক্ষিতে লাশ ময়নাতদন্ত ছারায় লাশ দাফনের অনুমতি দেওয়া হয়েছে।নিহত নাহিদের বাবা বর্তমানে খুলনার খানজাহান আলী থানার এসআই হিসাবে কর্মরত আছেন।