অপটিক্যাল ফাইবার কি? অপটিক্যাল ফাইবার কিভাবে কাজ করে?

অপটিক্যাল ফাইবার শব্দবন্ধ এর সাথে আমরা সবাই কম বেশি পরিচিত। বর্তমানে যোগাযোগ ব্যবস্থা জেসন যুগে আমরা বসবাস করছি তার অন্যতম হাতিয়ার এই প্রযুক্তিটি। আমাদের পাঠানো তথ্য কেন্দ্র রূপে পৌঁছে দেয় এক স্থান থেকে অন্য স্থানে পাঠানো সকল তথ্য ছবি অডিও ভিডিও সব কিছু পরিচিত হয়ে যাচ্ছে হাজার হাজার মাইল পেরিয়ে। গন্তব্যস্থলে প্রতিনিয়ত ঘটছে আমাদের চারপাশে এই অসাধারণ প্রযুক্তি। উদ্ভাবনের ইতিহাস এবং কিভাবে কাজ করে তা নিয়ে আমাদের আজকের আর্টিকেলটি। আজকের সবাই শুরু থেকে শেষ পর্যন্ত আমাদের আজকের এই আর্টিকেলটি পড়বেন। তাহলে আপনারা খুব সহজে অপটিক্যাল ফাইবার সম্পর্কে খুব ভালোভাবে জানতে পারবেন।

সাধারণ তথ্য পাঠানো হয়ে থাকে দ্বিতীয় বিদ্যুৎচৌম্বকীয় তরঙ্গ এর মাধ্যমে। কিন্তু সমস্যা হলে একসাথে এটা পাঠানো যায় না। আবার তথ্য পাঠাতে অনেক বেশী সময় লাগে। তাই গবেষকরা চিন্তা করলেন আলোকে মাধ্যম হিসেবে ব্যবহার করার। মাইক্রোওভেনে আলোর কম্পাস প্রায় ১ লক্ষ গুণ বেশি। ব্যবহারের জন্য অনেক বেশি কার্যকরী নিয়ে যাবে। কিন্তু কিভাবে প্রথমে তাদের কেমন করে পানি বয়ে নিয়ে যেতে পারবে? উনিশ শতকের মাঝামাঝি সময়ে আবিষ্কার করেছিলেন। কিন্তু ইংরেজি বিজ্ঞানীরা এটাকে আরো একদম আগে আরো ডিজিটাল ভাবে পরিকল্পনা করেছিলেন। এবং তা থেকে তারা অনেকটাই সফলতা অর্জন করেন।

কিছু নতুন সমস্যায় উদয় হলো আবার। কাচের রোডের সাথে আলোকে পাঠানোর সহজ হলেও। কাচের রোড নিয়ে কাজ করা সহজ? কাছের রডের মত ভারী ভঙ্গুর একটি জিনিস কে বড় পরিসরে স্থাপন করা কত ঝামেলা তাছাড়া এটি অনেক দুস্কর ব্যাপার। তাই গবেষকরা কাচের রড কে বেছে না নিয়ে কাছের তন্দুকে বেছে নেয়। এবং তারা সিদ্ধান্ত নিল কাঁচের তন্দুকেই ব্যবহার করবে আলোক পরিবহনের জন্য। তারা বিভিন্ন শিল্পে কাছের তন্ধু বানানোর জন্য কাজে লেগে গেলো। খুবই সচেতন কাঁচের তন্দু বানালো তারা। কিন্তু এখানে এবার আগের একটি সমস্যাই হাজির হলো।

কাঁচের তনদু ব্যবহার করে কাজ করা সহজ। কিন্তু বায়ুমণ্ডলের মাধ্যমে প্রচুর পরিমাণে লস হবে আলোর। ধীরে ধীরে ছিন্ন হয়ে পড়ে আলোর সংকেত তবে কাজটা তো আর বায়ুমন্ডলের নয়। একে প্রয়োজন মত পরিবর্তন করে নেওয়া সম্ভব হলেও হতে পারে। তাই বিজ্ঞানীরা এ নিয়ে অনেক গবেষণা করলেন যে কিভাবে একটি লস হয়। তবে অনেক পরিক্ষা নিরীক্ষা করে সব শেষে এই ফাইভার অপটিক্যাল তৈরি করে সক্ষম হয়।

আশাকরি আপনারা ফাইবার অপটিক্যাল সম্পর্কে বিস্তারিত জানতে পেরেছেন। আরো যদি এই বিষয়ে কারো কোনো রকম প্রশ্ন থাকে তাহলে আমাদের কমেন্ট সেকশনে জানাতে পারেন। আর এরকম আর্টিকেল প্রতিনিয়ত পেতে আমাদের ওয়েবসাইট ভিসিট করুন।

You might also like
Leave A Reply

আপনার ইমেইল ঠিকানা প্রকাশ করা হবে না

This website uses cookies to improve your experience. We'll assume you're ok with this, but you can opt-out if you wish. Accept Read More

Privacy & Cookies Policy