আমাদের কমন ইন্টারনেট ব্রাউজার গুগল ক্রোম এর সুবিধা অসুবিধা

ইন্টারনেট ব্যাবহার করেন অথচ গুগল ক্রোম ব্রাউজার কে চিনে না এমন ইন্টারনেট বেবহারকারী পাওয়া মুশকিল।গুগল ক্রোম ব্রাউজার এর সুবিধার তুলনায় অসুবিধার একবারেই নগণ্য।আমরা যারা গুগল ক্রোম ব্রাউজার ব্যাবহার করি তাঁরা জানি ইন্টারনেট ব্রাউজার হিসাবে গুগল ক্রোম ব্রাউজার কতটা ভালো।আজকে আমরা এই আর্টিকেলে গুগল এর ব্রাউজার এর সুবিধা এবং অসুবিধা সম্পর্কে জানবো।আর এই ব্রাউজারের বিসাত্রিত জানতে হলে এই আর্টিকেল শেষ পর্যন্ত পড়তে হবে।

প্রচলিত অন্যান্য ইন্টারনেট ব্রাউজার এর চাইতে গুগল ক্রোম ব্রাউজার আপনাকে বেশী সুবিধা দিবে।তবে আমরা প্রথমে গুগল ক্রোম ব্রাউজার এর সুবিধা সম্পর্কে জানবো।এর পর এই ব্রাউজার এর অসুবিধা সমূহ জানবো।

গুগল ক্রম এর সুবিধার কথা আলোচনা করতে গেলে প্রথমে এর সিম্পল ডিজাইন সম্পর্কে আলোচনা করতে হবে।এই ব্রাউজার এর ডিজাইন এতটাই সিম্পল করা হয়েছে যে,এর মেনু টা কে আমাদের সামনে থেকে নিয়ে যেয়ে সেটিংস পেজের ভেতরে রাখা হয়েছে।প্রথম রিলিজ থেকে শুরু করে এই পর্যন্ত গুগল ক্রোম ব্রাউজার ডেভলপার টিম এই ব্রাউজারের অসংখ্য আপডেট নিয়ে এসেছ।আর এই আপডেট এর ফলে আমাদের ব্রাউজিং গতি আরও বেড়েছে।

আপনি যখন অন্যান্য ইন্টারনেট ব্রাউজার গুলো ব্যাবহার করেন,তখন খেয়াল করেছেন নিশ্চয় যে এই ব্রাউজার গুলো কতটা ভারী এবং ধীর গতি সম্পন্ন।আর এই ব্রাউজার গুলোর গতি কম হবার কারনে যেকোনো ওয়েবসাইট ওপেন হতে অনেক বেশী সময় নেয়।আর এই ধীর গতির জন্য আমাদের ইন্টারনেট ডাটা যেমন নষ্ট হচ্ছে তেমনি আমাদের মূল্যবান সময়ও নষ্ট হচ্ছে।অপরদিকে গুগল এর এই ব্রাউজার ব্যাবহারকারী সবাই এক কথায় শিকার করে নিয়েছে যে এই ব্রাউজার অন্যান্য ব্রাউজার থেকে অনেক দ্রুত গতি সম্পন্ন।

আমরা যারা গুগল ক্রোম ব্রাউজার ব্যাবহার করি তাঁরা অবশ্যই জানি,আমাদের ইউজার অভিজ্ঞতা বাড়ানোর জন্য গুগল এর রয়েছে অসংখ্য ব্রাউজার এক্সটেনশন।এই ব্রাউজার এক্সটেনশন গুলও আমরা বিনা মূল্যে ব্যাবহার করতে পারি।আপনি যদি ব্রাউজার এক্সটেনশন ইন্সটল করতে চান তাহলে আপনাকে দুইটি মার্কেট প্লেস ব্যাবহার করতে হবে।মার্কেট প্লেস দুইটি হল ক্রোম ওয়েব স্টোর আর অন্যটি জি-স্যুট মার্কেটপ্লেস।

আপনার তথ্যের নিরাপত্তার জন্য আপনি নিসন্দেহে গুগল ক্রোম ব্রাউজার ব্যাবহার করতে পারেন।শুধু এতটুকু মনে রাখবেন আপনি যখনই গুগল ক্রোম ব্রাউজার ব্যাবহার করবেন।আপনি সেই মুহূর্তে টেকনোলজি জগতের সর্বশেষ প্রযুক্তি ব্যাবহার করছেন।কারন সব সময় তাদের সকল সার্ভিসে ইউজার এর নিরাপত্তার বিষয়টি মাথায় রেখে কাজ করে।এছারা গুগল ক্রোম ব্রাউজার আপনাকে সকল প্লাটফর্মে তাদের এই ব্রাউজার ব্যাবহার করার সুযোগ দিয়ে থাকে।

এছারা যেকোনো ডিভাইসে আপনার ব্রাউজার কে লঙ্ক করতে পারবেন।ধরুন আপনি অনেক গুলো ওয়েবসাইট এর এড্রেস আপনার কম্পিউটার এর গুগল ক্রোম ব্রাউজারে বুকমার্ক করে রেখেছেন আপনি চাইলে এই বুকমার্ক করা ওয়েবসাইট গুলো আপনার স্মার্ট ফোনের গুগল ক্রোম ব্রাউজার থেকে আক্সেস করতে পারবেন।এই রকম আরও অসুবিধা পাবেন আপনি এই ব্রাউজার ব্যাবহার করলে।যা আপনার ইন্টারনেট ব্রাউজিং এর অভিজ্ঞতা পরিবর্তন করতে সক্ষম।

এবার আমরা জানবো গুগল ক্রোম ব্রাউজারের অসুবিধা সম্পর্কেঃ

আপনার কম্পিউটার অথবা স্মার্ট মোবাইলে অবশ্যই গুগল প্রোডাক্ট এর একটি করে ফোল্ডার তৈরি হয়ে থাকে।আপনি গুগল ক্রোম ব্রাউজার এর ফোল্ডার টি খেলে দেখেন এখানে দুইটি ব্রাউজার আছে।একটি গুগল ক্রোম এবং অপরটি গুগল ক্রোমিয়াম।আর প্রায়ই ব্যাবহার কারিরা একটি ব্রাউজার চালু করতে যেয়ে অন্যটি চালু করে ফেলে।সুতরাং এটি গুগল ব্রাউজার এর একটি ছোট অসুবিধা বলা চলে।

গুগল ক্রোম ব্রাউজার এর একটি ট্রাকইং সিস্টেম রয়েছে।গুগল এই ট্রাকিং সিস্টেম দিয়ে তার ব্যাবহারকারীর গতিবিধি দেখে থাকে।ব্যাবহারকারী কোন ওয়েবসাইটে যাচ্ছে,কি করছে,কোন জিনিসের প্রতি কোন একজন নির্দিষ্ট বেবহারকারির আকর্ষণ তা ট্রাক করে থাকে।এটি মুলত তাঁরা তাদের অ্যাড প্রদর্শন এর কাজে ব্যাবহার করে থাকে।এছারা এই ব্রাউজার আপনার ডিভাইস এর বেশী পরিমান সিপিউ এবং মেমোরি ব্যাবহার করে থাকে এবং ক্রোম অপারেটিং সিস্টেমে গুগল ক্রম ব্রাউজার একমাত্র ডিফল্ট ব্রাউজার যা আপনি চাইলেও পরিবর্তন করতে পারবেন না।

Leave a Reply

Your email address will not be published.