Primo RX7 : ফোনটির বিস্তারিত হ্যান্ডস অন রিভিউ (৪জিবি র‍্যাম,নচ,প্রিমিয়াম ডিজাইন)

এক্সপ্লোর দা এলিগেন্স বা ‘সৌন্দর্যকে পরিদর্শন করুন’ ট্যাগলাইন নিয়ে ওয়ালটন এবার বাজারে আনলো তাদের আরেকটি মিড রেঞ্জ বাজেট স্মার্টফোন প্রিমো আরএক্স৭। এর আগের ‘প্রিমো আরএক্স৬’ স্মার্টফোন ব্যবহারকারীদের ভেতর অনেকটা সারা ফেলেছিল। তারই ধারাবাহিকতায় ওয়ালটন এবার নিয়ে এলো আরএক্স সিরিজের নতুন এক সদস্য আরএক্স৭।

বাজারে এই ফোনটি আপনি পাবেন ১৩৯৯৯ টাকায়। এটি এর আগের আরএক্স৬ এর থেকে ডিজাইন এর দিক থেকে আরো বেশি অনবদ্য। ১৩৯৯৯ টাকায় এই ফোনে পাওয়া যাবে টাইপ সি চার্জ এবং ডাটা ট্রান্সফারিং পোর্ট। এই বাজেট রেঞ্জে এরকম ফিচার এবং প্রিমিয়াম ডিজাইন প্রিমো আরএক্স৭ কে অন্যসব ফোনের থেকে করেছে আরো বেশি অনন্য। এছাড়াও এর দারুন ক্যামেরা এবং আকর্ষণীয় হার্ডওয়্যার স্পেসিফিকেশন তো থাকছেই। সব মিলিয়ে এই প্রিমো আরএক্স৭ নিয়ে এই লেখায় থাকবে বিস্তারিত।

একনজরে প্রিমো আর এক্স৭ঃ

  • ১৬ এবং ৫ মেগাপিক্সেল ক্যামেরা সেন্সর সম্বলিত আর্টিফিশিয়াল ইন্টেলিজেন্স ডুয়াল ক্যামেরা মডিউল
  • ১৩ মেগাপিক্সেল ফ্রন্ট ফেসিং ক্যামেরা
  • ডুয়াল সাইড গ্লাস প্যানেল ডিজাইন
  • ৪ জিবি র‍্যাম, ৬৪ জিবি রম সাথে ২৫৬ জিবি পর্যন্ত এসডি কার্ড সাপোর্ট
  • ১৯ঃ৯ রেসিও সম্বলিত ৬.৩ ইঞ্চি আইপিএস ইনসেল প্রযুক্তির ডিসপ্লে
  • ৩৯০০ এমএএইচ লিথিয়াম পলিমার ব্যাটারি

ফোনটির বক্সের ভেতর আপনি যা যা পাবেনঃ প্রিমো আরএক্স৭ ডিভাইস, একটি সিম ইজেক্টর পিন, একটি ট্রান্সপারেন্ট ব্যাক কভার, চার্জিং অ্যাডাপ্টার, ইউএসবি কেবল, প্রোটেকশন ফিল্ম(পেপার) এবং কিছু পেপার ওয়ার্কস।

ডিজাইনঃ ডুয়াল সাইড গ্লাস,গ্র্যাডিয়েন্ট ব্যাক, স্ক্র্যাচপ্রুফ গ্লাস

Primo RX7 ডিভাইসটি আসছে স্যান্ডউইচ গ্লাস ডিজাইন এর সাথে। অর্থাৎ স্ক্রিনের ফ্রন্ট প্যানেলে তো গ্লাস পাচ্ছেনই, পিছে তথা রিয়ার প্যানেলেও পাবেন গ্লাস ব্যাক। আর উভয়পাশে এই গ্লাস স্ক্র্যাচ প্রটেক্টিভও বটে। Primo RX7 এর ডিজাইন অনেকটা হুয়াওয়ে ধাঁচের। এর ফ্রন্ট সাইড দেখলে মনে হবে হুয়াওয়ে ওয়াই৬ ২০১৯ এর মত আর পিছনটা পুরোটা হুয়াওয়ে পি২০ প্রো এর মত। সুতরাং ডিজাইন এর দিক দিয়ে ওয়ালটন এই ডিভাইসে ‘নো কম্প্রোমাইজ’ রুল ফলো করেছে । বাজারে ফোনটি পাওয়া যাবে দারুন দুটি কালারে, এগুলো হলোঃ অরোরা গ্রিন এবং মিডনাইট পারপেল, এবং কোন কালারই কোনটির থেকে কম নয়। তবে মিডনাইট পারপেল এর আগের প্রায় সব গ্র্যাডিয়েন্ট কালার সম্বলিত ফোনে দেখা গিয়েছে, সেই হিসেবে অরোরা গ্রিন কালারটি নতুন।

ডিসপ্লেঃ ইউ নচ, ২কে রেজুলেসন, ইনসেল আইপিএস প্যানেল

ফোনটিতে ১৯ঃ৯ রেসিও সম্বলিত ডিসপ্লে দেয়া হয়েছে, আর আমরা জানি যে এই রেসিও সম্বলিত ডিসপ্লে গুলোতে সাইড বেজেল অনেক কম পাওয়া যায়, Primo RX7 ফোনের ক্ষেত্রেও ব্যাতিক্রম ঘটেনি, আমরা এই ফোনে দেখতে পারব অনেক মিনিমাম একটি বেজেল। এর অপরে থাকছে একটি ওয়াটার ড্রপ নচ, যার ভেতর দেখতে পাব ১৩ মেগাপিক্সেল এর সেলফি শুটার। এতে ব্যাবহার করা হয়েছে ৬.৩ ইঞ্চি ইন-সেল আইপিএস ডিসপ্লে প্যানেল। আইফোন ৪এস এর মাধ্যমে এই ইনসেল আইপিএস ডিসপ্লে প্রযুক্তি প্রথম আসে। সাধারন আইপিএস ডিসপ্লেটে টাচ প্যানেল এবং ডিসপ্লে দুটি আলাদা-আলদা লেয়ার তথা সম্পূর্ণ ডিসপ্লে দুটি লেয়ারে বিভক্ত থাকে। তবে ইনসেল আইপিএস ডিসপ্লেতে দুটি আলাদা লেয়ার বদলে এখানে একটি সিঙ্গেল লেয়ার থাকে। একারনে ইনসেল আইপিএস ডিসপ্লে অনেক পাতলা এবং এটি অনেক বেশি টাচ রেস্পন্সিভও বটে।

Leave a Reply

Your email address will not be published.