৯৫৯৯ টাকায় নচ ডিসপ্লে, ৩ জিবি র‍্যাম – ওয়ালটন প্রিমো আর৬ রিভিউ

১০ হাজারের বাজেটে সেরা সব স্মার্টফোন নিয়ে দেশীয় ব্র্যান্ড ওয়ালটন প্রতিনিয়তই আমাদের সামনে হাজির হচ্ছে। সাম্প্রতিক এইচ৮ টার্বো এবং এইচ৮ প্রো এর বাজিমাত তারই প্রমান। দামের হিসেবে ওয়ালটন এই দামে যে স্পেকস আমাদের দিচ্ছে তার তুলনা বাজারে খুঁজতে গেলে আপনাকে একটু কষ্টই পোহাতে হতে পারে।

প্রিমো আর৬ ম্যাক্স এর পড়ে এবার বাজারে চলে এলো প্রিমো আর৬, ব্যাপারটা একটু অবাক করারই মত, তবে ১০ হাজারের টাকার ভিতরে আরেকটি সেরা স্মার্টফোন হওয়ার জন্য এই প্রিমো আর৬ এর আগমন। আর যাদের পছন্দের তালিকায় আর৬ ম্যাক্স ছিল তারা এই আর্টিকেলটি পড়ে আরেকবার বসে সিদ্ধান্ত নিতে পারেন। সাম্প্রতিক আর৬ ম্যাক্স এর দাম ১০ হাজার টাকার কাছাকাছি ১০৯৯৯ টাকা হলেও, এবার প্রিমো আর৬ এর রেগুলার দাম রাখা হয়েছে ৯৫৯৯ টাকা, অর্থাৎ ১০ হাজার টাকার নিচে।

আর৬ ম্যাক্স এর মতোই এই প্রিমো আর৬ এও আপনি পাচ্ছেন একই ১৩+২ মেগাপিক্সেল এর রিয়ার ডুয়াল ক্যামেরা মডিউল। সুতরাং একই ভাবে প্রিমো আর৬ এর একটি অন্যতম মূল আকর্ষণ ডুয়াল ক্যামেরা। দ্বিতীয়ত এর দুর্দান্ত হার্ডওয়্যার স্পেসিফিকেশন, তা হল ১.৬ গিগাহার্জ অক্টাকোর প্রসেসর এবং ৩ জিবি র‍্যাম। ১০ হাজারের ভেতরেই এরকম বান্ডেল এই স্মার্টফোনকে বানিয়ে দিয়েছে আরেকটি বাজেট কিলার! ফোনটি বাজারে পাওয়া যাবে তিনটি কালারে, এগুলো হল; ক্রিমসন ডার্ক (অনেকটা খয়েরি এর মত), টুলাইট ব্লু এবং ডার্ক ব্লু। আর কালার তিনটিই খুবই অসাধারণ এবং ডিজাইনকে খুব ফুটিয়ে তুলেছে।

একনজরে ওয়ালটন প্রিমো আর৬ঃ

  • (১৩+২) মেগাপিক্সেল রিয়ার ডুয়াল ক্যামেরা মডিউল
  • ফ্রন্ট ৮ মেগাপিক্সেল সেলফি ক্যামেরা
  • ARM Cortex-A55, ১.৬ গিগাহার্জ অক্টাকোর প্রসেসর
  • ৩ জিবি র‍্যাম এবং ৩২ জিবি স্টোরেজ
  • ৬.০৯ ইঞ্চি আইপিএস ডিসপ্লে (ইউ নচ/ডট নচ)
  • ৪০০০ এমএএইচ লিথিয়াম পলিমার ব্যাটারি

বক্স এর ভেতর যা যা পাচ্ছেনঃ প্রিমো আর৬ ডিভাইসটি, চার্জিং আড্যাপ্টার, ইউএসবি চার্জিং ক্যাবল, সিম ইজেক্টর পিন, একটি হেডফোন, ইউজার ম্যানুয়াল এবং সেফটি ইন্সট্রাকশন।

ক্যামেরা

প্রথমেই আসি এর ক্যামেরা মডিউল এর দিকে। কেননা এটিই স্মার্টফোনটির অনেক আকর্ষণীয় একটি বিষয়, আর অনেকের প্রথম পছন্দও হতে পারে স্মার্টফোনটির ডুয়াল ক্যামেরা ফিচার। স্মার্টফোনের ক্ষেত্রে সাধারণত দু’প্রকার ক্যামেরা সেন্সর হয়, সিমোস এবং বিএসআই। আর বিএসআই সেন্সর যুক্ত ক্যামেরার লো লাইট পারফর্মেন্স অনেক বেশি ভালো হয় সিমোস এর তুলনায়। আর এই প্রিমো আর৬ এর রিয়ার এবং ফ্রন্ট দু’পাশেই থাকছে বিএসআই ক্যামেরা সেন্সর। সুতরাং অন্ধকারে ছবি কেমন আসবে না আসবে এই বিষয়ে চিন্তা নাও করতে পারেন।

You might also like
Leave A Reply

আপনার ইমেইল ঠিকানা প্রকাশ করা হবে না

This website uses cookies to improve your experience. We'll assume you're ok with this, but you can opt-out if you wish. Accept Read More

Privacy & Cookies Policy