এসইও বা সার্চ ইঞ্জিন অপটিমাইজ করতে বা শিখতে গেলে আপনাকে এই শব্দ গুলো চিনতে হবে

সার্চ ইঞ্জিন অপটিমাইজেসন এর সাথে সংশ্লিষ্ট ট্রামগুলোকে নিম্নোক্ত নামে চিহ্নিত করা যেতে পারে। যথাঃ-

১। সার্চ কুয়ারি(Search Quary)

২। কী-ওয়ার্ড (Keyword)

৩। ওয়েব ক্রলিং এবং সার্চ ইঞ্জিন স্পাইডার (web Crawling and Search Engine Spider)

৪। Robot.txt এবং SiteMaps.org এর ব্যাবহার।

নিচে এই ট্রাম গুলো সম্পর্কে বিস্তারিত আলোচনা করব ইনশাল্লাহ।

১।সার্চ কুয়ারিঃ  টার্গেট ভিজিটর যে কাজ টি করে থাকেন সেটি হল তিনি যে বিষয় সম্পর্কে জানতে চান,তার সাথে বিভিন্ন শব্দ বা ফ্রেজ সার্চ ইঞ্জিন এর বক্স এ প্রবেশ করিয়ে সার্চ করা।যেমনঃ নতুন কম্পিউটার কিনতে চান তারা এই ভাবে সার্চ দিতে পারেন New Computer, New Computer Model, Computer News Etc….

আবার যাঁদের কম্পিউটার আছে তারা তাদের কম্পিউটার এর বিভিন্ন সমস্যা সম্পর্কে জানতে সার্চ দিতে পারেন।

এই ধরনের শব্দ যেগুলো সার্চ ইঞ্জিন এ প্রবেশ করিয়ে সার্চ দেওয়া হয় সেগুলোকে সার্চ কুয়ারি বলা হয়।এগুলোর সাথে SEO সংশ্লিষ্ট যে ট্রামটি গুরুত্বপূর্ণ সেটি হল ওয়েবসাইট এর কী-ওয়ার্ড।

২।কীওয়ার্ড(Keyword): কোন ওয়েবসাইট যখন ডেভেলপ করা হয় তখন তার বিষয়বস্তু কে সংক্ষেপ এ পরিচিত করতে এর সাথে অধিক সংশ্লিষ্ট যে শব্দ বা ফ্রেজ নিদ্ধারন করা হয় সেইগুলোয় হল তার কী-ওয়ার্ড।এই নিদ্ধারিত এবং বাছাইকৃত কী-ওয়ার্ড গুলো হল ওয়েবসাইটটির SEO এর মূল ভিত্তি এবং এই গুলোকে টেকনিক্যালই সাইট এর বিভিন্ন স্থানে এমন ভাবে লুকিয়ে রাখা হয় যেন যখন সার্চ ইঞ্জিন এ কোন সার্চ কুয়রি প্রবেশ করিয়ে সার্চ করা হলে তখন ঐ কুয়ারি করা শব্দ গুলোকে সার্চ ইঞ্জিন অন লাইন এর বিভিন্ন সাইট এ সার্চ করার সময় কাঙ্ক্ষিত সাইট এর লুকায়িত কী ওয়ার্ড এর সাথে তা ম্যাচ করতে পারে।যে সমস্ত সাইট এর কী ওয়ার্ড সার্চ কুয়ারি এর সাথে ম্যাচ করবে উক্ত ওয়েবসাইট গুলো উক্ত কী ওয়ার্ড এর সার্চ রেজাল্ট পেজ এ তত বেশি গুরুত্ব পাবে।কী ওয়ার্ড নিয়ে আর একটি পার্ট থাকবে সেখানে এই বিষয় এ বিস্তারিত আলোচনা করা হবে।

৩।ওয়েব ক্রলিং এবং সার্চ ইঞ্জিন স্পাইডার:অপর একটি সংশ্লিষ্ট ট্রাম এখানে খুবই গুরুত্বপূর্ণ সেটি হল সার্চ ইঞ্জিন স্পাইডার কি এবং এটি কিভাবে কাজ করে?এটি আসলে একটি সফটওয়্যার প্রোগ্রাম যা সার্চ ইঞ্জিন সমুহ ব্যাবহার করে ওয়েব এর বিশাল জগতে পরিবর্তনশীল ওয়েবসাইট গুলোতে কি কি নতুন কনটেন্ট আসছে তা ইনডেক্স করে থাকে।এই প্রোগ্রাম গুলো কোন একটি ওয়েবসাইট এ তাদের কার্যক্রম স্টার্ট করে প্রথমে সে ওয়েবসাইট টির পেজ গুলো লোড করে এবং এর প্রতিটি পেজ এর হাইপার লিংককে ফলো করে।সার্চ এর থিয়োরি এই ভাবেই বিস্তার লাভ করে।এই স্পাইডার প্রোগ্রামটি এক এর পর এক ওয়েবসাইট ক্রল করে ফলে কোন ওয়েবসাইট এ কি আছে তা তাদের নখদর্পণে এসে পড়ে।সার্চ ইঞ্জিন গুলো বিভিন্ন সার্ভার এ তাদের স্পাইডার এর অসংখ্য ইন্সট্যান্স রান করে থাকে।

ক্রলার যখন কোন ওয়েবসাইট ভিজিট করে তখন সে উক্ত ওয়েবসাইট এর পেজ গুলো তার ডাটাবেজ এ লোড করে নেয়।মজার ব্যাপার হচ্ছে এই পেজ গুলো সম্পূর্ণ লোড না হয়ে কী ওয়ার্ড এর ভিত্তিতে লোড হয়ে থাকে।এই কী ওয়ার্ড গুলো কোথায় থাকে তাদের কোথায় থেকে পিক করতে হয় এই সম্পর্কে স্পাইডার গুলোর একটা বিহেভিয়ার রয়েছে।এই বিহেভিয়ার অনুসারে আমরা যদি নির্দিষ্ট স্থানে কনটেন্ট এর সাথে ম্যাচ করে কী-ওয়ার্ড সমুহ ম্যাচ করে লুকিয়ে রাখতে পারি তবে ওয়েব ক্রলার আমদের সাইট হতে সঠিক কী-ওয়ার্ড গুলো পিক করতে সক্ষম হবে।এ সম্পর্কে আমরা পরবত্তি টিউটোরিয়াল এ জানতে পারব।

এভাবে ক্রলার কোন ওয়েবসাইট এর পেজ লোড করার পর সার্চ ইঞ্জিন এর ইনডেক্স এ স্থান পায়।

এই ইনডেক্স গুলো হল এক বিশাল ডাটাবেজ যেখানে অসংখ্য সাইট কে ক্রল করার পর এর কনটেন্ট এবং কী ওয়ার্ড সমুহ স্টোর করে রাখা হয়।

৪।Robot.txt এবং Siteaps.org এর ব্যাবহারঃ সার্চ ইঞ্জিন স্পাইডার যখন কোন ওয়েবসাইট কে ভিজিট করে তখন সে প্রথম যে কাজ করে সেইটি হল এর Robot.txt ফাইল কে খুঁজে বের করা।এই ফাইল টি তে স্পাইডার প্রোগ্রাম এর জন্য নির্দেশনা দেওয়া থাকে যে সে উক্ত ওয়েবসাইট এর কোন কোন অংশ কে ক্রল করবে আর কোন অংশ কে ক্রল করা থাকে বিরত রাখবে।সুতরাং ক্রলার যেন আপনার সাইট এর প্রয়োজনীয় অংশ ক্রল করতে পারে সে জন্য আমাদের উচিত Robot.txt ফাইল কে সঠিক ভাবে ব্যবহার করা।স্পাইডার কে কন্ট্রোল করার বিভিন্ন কৌশল সম্পর্কে আমরা পরবত্তি টিউটোরিয়াল এ শিখব।

সকল স্পাইডার প্রোগ্রাম কিছু স্ট্যান্ডার্ড নিয়ম অনুসরন করে এবং সার্চ ইঞ্জিন গুলোও প্রায় এই নিয়ম অনুসরন করে।এতে সর্বশেষ যুক্ত স্ট্যান্ডার্ড হল এক্সএমএল(XML)সাইটম্যাপ।

Leave a Comment