তবে কি বাতিল হতেই চলেছে এবারের আইপিএল আসর?

বিশ্বব্যপি চলেছে করোনা ভাইরাসের মহামারি।ভারত বর্ষও করোনা ভাইরাসের সংক্রামনে আক্রান্ত।ইতিমধ্যে দেশ জুরে লক ডাউন ঘোষণা করেছে সরকার।এমন পরিস্থিথিতে ক্রীড়া প্রেমিদের প্রশ্ন এবারের ক্রিকেট এর আইপিএল আসর শুরু হবে কিনা?এই নিয়ে এখন পর্যন্ত সরকারী কোন ঘোষণা আসেনি।তবে করোনা ভাইরাসের সংক্রামন যেভাবে বাড়ছে তাতে করে মনেই হচ্ছে যে এবারের আইপিএল বাতিল এর সম্ভবনাই বেশী।

যদিও এখন পর্যন্ত ভারতীয় ক্রিকেট কন্ট্রোল বোর্ডের তরফ থেকে এই ব্যাপারে কোন কিছু জানানো হয় নি।বলা হচ্ছে সরকার ও ক্রীড়া মন্ত্রালয় ভিসার ব্যাপারে সিন্ধান্ত নিলেই বোর্ডও আইপিএল নিয়ে ঘোষণা দিবে যে, এবার আইপিএল এর আসর হবে কি হবে না।কারন আগামী ১৫ এপ্রিল পর্যন্ত সকল প্রকার ভিসা বাতিল করেছে ভারত সরকার।কিন্তু আগামী ১৫ এপ্রিল এর পর পরিস্থিথি স্বাভাবিক হয়ে যাবে এমন কোন নিশ্চয়তা ও নেই।দেশে করোনা সংক্রামন রোগীর সংখ্যা বাড়ছে।এমন অবস্থায় আইপিএল শুরু হবার সম্ভবনা নেই বললেই চলে।

আইপিএল এর সাথে সম্পৃক্ত এক কর্মকর্তা ইন্ডিয়ান এক্সপ্রেস কে জানান,এ বছর আইপিএল হবে না।তবে আগামী বছর হবে।কারন বর্তমানে দেশের অবস্থা কেমন তা আমাদের কারও অজানা নয়।এমন অবস্থায় কেউ ঝুঁকি নিবে না।আর করোনা ভাইরাসের কারনে যে সামাজিক দূরত্ব বজায় রাখতে বলা হচ্ছে,এমন সামাজিক দূরত্ব ক্রিকেট স্টেডিয়ামে বজায় রাখা সম্ভব নয়।

গত ১৪ ই মার্চ ক্রিকেট বোর্ড আইপিএল ফ্র্যাঞ্চাইজি গুলোর সাথে এক আলচনায় বসেছিল।আলচনায় বসে বোর্ড সভাপতি সৌরভ গঙ্গোপাধ্যায় মনে করেছিলেন এবার আইপিএল এ হয়তবা কাটছাঁট করে হবে।কিন্তু ১৪ মার্চ এর পর দুই সপ্তাহ অতিক্রম হয়েছে।

বর্তমানে ভারতে করোনা ভাইরাসের সংক্রামন এর হাড় আগের থেকে অনেক বেড়েছে।ক্রিকেট বোর্ড সচিব জয় শাহ তার দেওয়া এক বিবৃতিতে বলেছেন,বর্তমান পরিস্থিথিতে সবার নিরাপত্তার বিষয় কে অগ্রাধিকার দেওয়া হচ্ছে।এদিকে কিংস ইলেভেন পঞ্জাবের মালিক নেস ওয়াদিয়া বলেছেন,করোনা ভাইরাস এর কারনে দেশের বর্তমান যে অবস্থা এই অবস্থার একটুও উন্নতি হয়নি।তাই এই সময়ে আইপিএল নিয়ে কোন কথা নয়।সুতরাং, সার্বিক পরিস্থিতিতে মনে হচ্ছে এবারের ক্রিকেট এর আইপিএল এর আসর বাতিল হবার পথেই।