আপনি জানেন কি ইন্টারনেট কি ভাবে কাজ করে?

আমাদের মনে এমন অনেক প্রশ্ন ঘুরে বেড়ায় যার আসলেও কোন উত্তর আমরা আজকে অবধি পাই নি।তেমনি একটি প্রশ্ন হল ইন্টারনেট কি?কিভাবে ইন্টারনেট কাজ করে অথবা এই ইন্টারনেট এর আসল মালিক কে?হয়ত আপনি এর আগে এই সম্পর্কে হালকা পাতলা জেনেছেন কিন্তু আজকের পোস্টে আমরা এই বিষয়ে বিস্তারিত জানবো।আর আমি আপনাকে বলব এই সব প্রশ্নের উত্তর জানার জন্য অবশ্যই এই আর্টিকেল শেষ পর্যন্ত মনোযোগ দিয়ে পড়ে ফেলুন।

ইন্টারনেট মূলত ইন্টার কানেক্টেড নেটওয়ার্ক।যা ইন্টারনেট প্রটোকল সুইট সিস্টেম ব্যাবহার করে সারা পৃথিবীর অসংখ্য ডিভাইস কে সংযুক্ত করে।ছোট বেলায় আমরা আমাদের সাধারন বিজ্ঞান বইয়ে পরেছিলাম ইন্টারনেট হল ইন্টারনেটে বিছান জাল!হ্যাঁ ঠিক তাই ইন্টারনেট অনেকটা জালের মত কাজ করে,একটি জালের একটি পয়েন্ট যেমন আর একটা পয়েন্ট এর সাথে যুক্ত থাকে।ঠিক একই ভাবে ইন্টারনেট সারা পৃথিবী ব্যাপী জালের মত একটি কম্পিউটার থেকে আর একটি কম্পিউটার এর সাথে যুক্ত হয়ে যোগাযোগ তৈরি করে।আর এই যুক্ত হবার কারনেই আমি আপনি বলতে পারি ইন্টারনেট এর কল্যাণে বিশ্ব এখন হাতের মুঠোয়।

ইন্টারনেট এর জন্মই হয়েছিল তথ্য বা ডাটা আদান প্রদান করার লক্ষে।যে কম্পিউটার গুলো একে অন্নের সাথে যুক্ত হয়ে ইন্টারনেট নেটওয়ার্ক তৈরি করে তাদের প্রধান কাজই হলে একে অপরের সাথে তথ্য বা ডাটা লেনদেন করা।আমরা আগে একটি চিঠি পোস্ট অফিসে পোস্ট করার পর দিনের পর দিন অপেক্ষা করতাম উত্তর পাবার আশায়।এর পর আসল ফাক্স এর যুগ সেখানেও অনেক লম্বা লাইন আর সময় লাগত।কিন্তু বর্তমানে?চোখের পলকে আমরা পৃথিবীর এই প্রান্ত হতে ওই প্রান্তে বার্তা আদান প্রদান করতে পারি।চোখের পলকে ঘটে যায় সবকিছু!

আপনি কি মনে করেন সম্পূর্ণ ইন্টারনেটে যত কম্পিউটার আছে তাঁরা সবাই একই কাজ করে?না তাঁরা সবাই একই কাজ করে না তাঁরা তাদের কাজের ধরনের উপর নির্ভর করে আলাদা আলাদা নামে পরিচিত হয়।যেমন যেসব কম্পিউটার গুলো শুধু মাত্র ডকুমেন্ট সংরক্ষন করে রাখে তাদের বলা হয় ফাইল সার্ভার বার যারা আমাদের ইমেইল কে সংরক্ষন করে তাদের কে বলা হয় ইমেইল সার্ভার আবার যখন কোন সার্ভার অর্থাৎ অনলাইন কম্পিউটার কোন ওয়েবসাইট এর সকল ডাটা সংরক্ষন করে এবং এর ব্যাবহারকারীদের আদেশমত কাজ করে তখন তাঁকে বলা হয় ওয়েব সার্ভার।

এখন আমরা জানবো ইন্টারনেট কিভাবে কাজ করে?পৃথিবী ব্যাপী ছড়িয়ে থাকা কম্পিউটার গুলো প্রথমে কোন নেটওয়ার্ক এর সাথে নিজেকে যুক্ত করে এবং এই নেটওয়ার্ক এর কম্পিউটার গুলো পরবর্তীতে অন্য নেটওয়ার্ক এর সাথে নিজেদের যুক্ত করে,আর এই যুক্ত হয়ে যে নেটওয়ার্ক তৈরি হয় তা ইন্টারনেট।আমরা যখন ইন্টারনেট ব্যাবহার করতে চাই তখন আমরা প্রথমে আমাদের লোকাল আইএসপি এর সাথে যুক্ত হই,এই লোকাল আইএসপি আবার বড় কোন আইএসপি এর সাথে যুক্ত হয়,এভাবে আইএসপি এর ধারাবাহিকতায় আমাদের চাহিদা মাফিক কম্পিউটার যে আইএসপি এর সাথে যুক্ত আছে সেই আইএসপি এর সাথে আমাদের কম্পিউটার এর আইএসপি কে যুক্ত করে দেয়।আর এভাবেই ইন্টারনেট এর মাধ্যমে পৃথিবীর দুই প্রান্তে থাকা দুইটি কম্পিউটার যোগাযোগ করতে পারে।আর এই ভাবেই ইন্টারনেট কাজ করে।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *