মোহাম্মদপুরে জমি দেখতে যেয়ে মারধরের শিকার সিআইডির কর্মকর্তাঃ গ্রেফতার ২

নিউজ ডেস্কঃ ঢাকার মোহাম্মাদপুরে জমি দেখতে গেলে তাঁকে মারধর করে তার কাছে থাকা সরকারী অস্ত্র ছিনিয়ে নেওয়ার ঘটনা ঘটেছে।আর এই অভিযোগে ২ জনকে গ্রেফতার করেছে মোহাম্মাদপুর থানার পুলিশ।আজকে মঙ্গলবার দুপুরে তেজগাঁও বিভাগের উপ-কমিশনার (ডিসি) মো. হারুন অর রশীদ নিজে সংবাদ সম্মেলনে এই তথ্য নিশ্চিত করেন।

গ্রেফতার হওয়া দুজন হলেন, জামিউল হক মোককাররম ওরফে বুলেট ও হাবিবুর রহমান হাবিব।এর মধ্য হাবিবের কাছে থেকে সিআইডি কর্মকর্তার ছিনতাই হওয়া ইস্যুকৃত সরকারি পিস্তল এবং গুলি উদ্ধার করা হয়েছে।

cid bangladesh.jpg

এর আগে গত ২১ মার্চ (রবিবার) দুপুরে বসিলা গ্রিন সিটি হাউজিংয়ে সিআইডি এর পরিদর্শক গাজী মিজানুর রহমানকে লোহার রড,ধারালো অস্ত্র এবং কাঠের লাঠি দিয়ে এলোপাতাড়ি মারপিট করে জখম করে সন্ত্রাসীরা।এরপর এই ঘটনায় মিরপুর ও মোহাম্মদপুরে অভিযান চালিয়ে মঙ্গলবার গভীর রাতে এই দুজনকে গ্রেফতার করে পুলিশ।

তেজগাঁও বিভাগের ডিসি বলেন, মোহাম্মদপুরের বসিলা এবং চন্দ্রিমা উদ্যানসহ বিভিন্ন হাউজিং সিটিগুলোতে মানুষ তাদের জন্য জমি কিনে থাকে।এর কারন একটাই,সেটা হল এসব হাউজিং সিটিগুলোতে খুব সহজে জমি কেনা যায়।কিন্তু এই এলাকা গুলোতে জমি বিক্রি করতে গেলে সেটা অনেক কঠিন একটা ব্যাপার হয়ে যায়।

ঘটনার বর্ণনা দিতে যেয়ে তিনি বলেন, নারায়ণগঞ্জ জেলায় কর্মরত সিআইডি কর্মকর্তা মিজানুর রহমান মোহাম্মদপুর বসিলা গার্ডেন সিটি থেকে সিআইডি সদর দপ্তরে যাওয়ার জন্য রওনা দেওয়ার পর মোহাম্মাদপুরের গ্রিন সিটি হাউজিং-২ এ তার কেনা প্লট তিনি দেখতে যান।এই প্লটটি তিনি তার নিজের নামে কিনেছিলেন।এই সময় সেখানে আগে থেকেই উপস্থিত কিছু লোক তার গতিরোধ করে এবং তাঁকে লোহার রড,ধারালো অস্ত্র এবং কাঠের লাঠি দিয়ে এলোপাতাড়ি মারপিট করে জখম করে।

এসময় ডিসি আরও বলেন, তাঁরা সিআইডি কর্মকর্তা মিজানুর রহমানকে মেরে তার কাছে থেকে, সরকারী পিস্তল,মোটরসাইকেল,মোবাইল ফোন এবং নগদ টাকা ছিনিয়ে নিয়ে পালিয়ে যায়।এই ঘটনায় সিআইডি কর্মকর্তা মিজানুরের স্ত্রী বাদি হয়ে অভিযোগ দায়ের করলে মোহাম্মাদপুর থানায় মামলা হয়।

এরপর ঐ এলাকায় তদন্ত চালিয়ে অপরাধীদের ব্যাপারে তথ্য সংগ্রহ করে পুলিশ।এরপর তথ্য-প্রযুক্তির সাহায্য নিয়ে জামিউল হক মোকাররম ওরফে বুলেটকে মঙ্গলবার গভীর রাতে মিরপুর থেকে গ্রেফতার করা হয়।তারপর জামিউল হক মোকাররম ওরফে বুলেটের দেওয়া তথ্যর উপর ভিত্তি করে হাবিবুর রহমানকে মোহাম্মদপুর এলাকার জাকির হোসেন রোড থেকে গ্রেফতার করা হয়।

এই ঘটনায় অস্ত্র আইনে মোহাম্মাদপুর থানায় মামলা দায়ের করা হয়েছে এবং প্রাথমিক জিজ্ঞাসাবাদে গ্রেফতার হওয়া দুজন ঘটনায় যুক্ত থাকার কথা স্বীকার করেছে।

You might also like
Leave A Reply

আপনার ইমেইল ঠিকানা প্রকাশ করা হবে না

This website uses cookies to improve your experience. We'll assume you're ok with this, but you can opt-out if you wish. Accept Read More

Privacy & Cookies Policy