এভারকেয়ার হসপিটালে বিএনপি চেয়ারপারসন খালেদা জিয়া

নিউজ ডেস্কঃ সিটি স্ক্যান করানোর জন্য দেশের সাবেক প্রধানমন্ত্রী এবং বর্তমান বিএনপি চেয়ারপারশন বেগম খালেদা জিয়াকে বসুন্ধুরা এলাকার এভারকেয়ার হসপিটালে (সাবেক অ্যাপোলো হসপিটাল) নেওয়া হয়েছে।বিএনপি চেয়ারপারশন বেগম খালেদা জিয়া করোনা ভাইরাসে (কোভিড-১৯) আক্রান্ত এবং আজকে তাঁকে সিটি স্ক্যান করানো হবে।

আজকে রাত ৯ টা ২৫ মিনিটে গুলশানের ভারা বাসা থেকে গাড়ি বের হয়ে ৯ টা ৪৫ মিনিটে গাড়ি এভারকেয়ার হসপিটালে পৌছায়।এবং সেই সময় এভারকেয়ার হসপিটাল কর্তৃপক্ষ গেট বন্ধ করে দেয়।

এসময় নিরাপত্তাকরমির কাছে এই ব্যাপারে জানতে চাইলে বলেন ভেতরে ঢুকতে হলে কর্তৃপক্ষের অনুমতি নিতে হবে,শুধুমাত্র হাসপাতাল কর্তৃপক্ষ ছাড়া অন্য কারও ভেতরে প্রবেশে নিষেধ আছে।

কারাবন্দি থেকে গত বছরের ২৫ মার্চ তাঁর ভারা বাসায় উঠেছিলেন বেগম খালেদা জিয়া এরপর আর বাহিরে বের হওয়া হয়নি তাঁর।সেই হিসাবে আজকে প্রায় একবছরের বেশী সময় পর বাসা থেকে বাহিরে বের হলেন বিএনপি চেয়ারপারসন।

খালেদা জিয়ার চিকিৎসকরা বলেছেন, তাঁর সকল প্রকার পরীক্ষা করা হয়েছে শুধু সিটি স্ক্যান করা বাকি ছিল।আজকে সিটি স্ক্যান করার পর যদি মনে হয় তাঁকে বাসায় রেখে চিকিৎসা করলে ভালো হবে।তবে তাই করা হবে আর যদি আমাদের মনে হয় তাঁকে কয়েকদিন হাসপাতালে রেখে পর্যবেক্ষণে রাখলে ভালো হবে তাহলে সেটাই করা হবে।

দুর্নীতির দায়ে সাজাপ্রাপ্ত বিএনপির এই ছাড়পারসন ২ বছর কারাভোগের পর করোনা ভাইরাসের মহামারীর কারনে গত বছরের ২৫ মার্চ তাঁর সাজা স্থগিত করে তাঁকে মুক্তি দেওয়া হয় এবং শর্ত হল এই সময়ে খালেদা জিয়া বাসা থেকে বের হতে পারবেন না এবং দেশ ত্যাগ করতে পারবে না।এবং এরপরে আরও দুই ধফা বেগম খালেদা জিয়ার মুক্তির মেয়াদ বাড়ানো হয়।

গত ১১ এপ্রিল স্বাস্থ্য মন্ত্রালয় থেকে জানানো হয় বিএনপি চেয়ারপারসন বেগম খালেদা জিয়া করোনা ভাইরাসে আক্রান্ত হয়েছে।এবং স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী আসাদুজ্জামান খান কামাল বলেছিলেন, প্রয়োজনে বিএনপি প্রধান দেশের যেকোনো হাসপাতালে যেয়ে চিকিৎসা নিতে পারবেন।

Leave a Reply

Your email address will not be published.