ওয়েবসাইট এর এসইও করার সময় কোন কাজের পর কোন কাজ করতে হয়?

আমার লিখা আগের পোস্ট টিতে উধাহরন হিসাবে কম্পিউটার এর একটি ওয়েবসাইট কে আলোচনা করেছিলাম।এবং যে ধাপ গুলো উল্লেখ করেছিলাম সেই গুলো এবার বাস্তব উধারন এর মাধ্যমে দেখব।কম্পিউটার এর ওয়েবসাইট এর কনটেন্ট হিসাবে কম্পিউটার এর ছবিসহ বর্ণনা,তাদের বিভিন্ন সমস্যা,এবং রিপেয়াইর এর টিপস আন্ত্রভুক্ত থাকতে পারে।এখন ওয়েব এ এই ওয়েবসাইট টি কে যেন আমাদের টার্গেট ভিজিটর খুজে পায় তার সাবলীল বাবস্থা হল এসইও।

এখানে ৪ টি বিষয় এ আলোচনা করব।বিষয় ৪ টি হলঃ

১। বিভিন্ন তরত সংশ্লিষ্ট ওয়েব পেজ বা সাইট কে সার্চ করার জন্য সার্চ পোর্টাল এর ব্যবহার,২। বিভিন্ন সার্চ ইঞ্জিন সমুহ,৩। সার্চ এর রেজাল্ট পেজ,৪। সার্চ ইঞ্জিন এর মাধ্যমে ওয়েবসাইট এ আসা ওয়েব ট্রাফিক তথা ইউজার ফিডব্যাক।

উপরের ধাপ গুলো এবার সংকিপ্ত আকারে আলোচনা করার চেষ্টা করব ইনশাআল্লাহ্‌।

১। বিভিন্ন তথ্য সংশ্লিষ্ট ওয়েব পেজ বা সাইট কে সার্চ করার জন্য সার্চ পোর্টাল এর ব্যবহারঃ

টার্গেট ভিজিটর যারা নিদিষ্ট তথ্যের জন্য ওয়েবসাইট সার্চ করেন।কম্পিউটার এর মালিক,নতুন যারা কম্পিউটার কিনতে চান,অথবা কম্পিউটার সম্পরকে জানতে আগ্রহি যে কেও আমাদের এই ওয়েবসাইট এর টার্গেট ভিজিটর হতে পারে।এখন কম্পিউটার সম্পকে ওয়েবসাইট ওয়েব এ অনেক এবং এই জাতীয় ওয়েবসাইট এর প্রকাশক সবাই তাদের ওয়েবসাইট এ এই টার্গেট ভিজিটর দের আশা করেন।কোন টার্গেট ভিজিটর এই ধরনের ওয়েবসাইট এর অ্যাড্রেস মনে রাখতে বা আগ্রহি কোন টাই হবেন না।নিজে কে এমন একজন ভিজিটর এর জায়গায় বসিয়ে চিন্তা করুন তাহলে ব্যাপার টা সম্পরকে আরও পরিস্কার ধারণা হবে।

কেও যদি নতুন কম্পিউটার কিনতে চায় এবং ইন্টারনেট থেকে তার পছন্দের কম্পিউটার সম্পরকে জানতে চায় তাহলে সে কি করবে?অবশ্যয় সে ইন্টারনেট এ এই সম্পরকে সার্চ করবে।কিন্তু খুব এ দুঃখের বিষয় যে একজন ভিজিটর সার্চ করার সময় কি ভাবে সার্চ পোর্টাল কে ব্যবহার করে আমারা সে বিষয় টা এড়িয়ে যাই।যদি আমারা বলি যে মানুষ সার্চ পোর্টাল ব্যবহার করে শুধু মাত্র তথ্য খোঁজার জন্য তবে এইটা হবে ওয়েব ব্যবহার এর একটি সরলিকরন ব্যাখ্যা।

যখন কোন মানুষ সার্চ ইঞ্জিন ব্যবহার করে তথ্য খোঁজে তখন সে সার্চ ইঞ্জিন এর সার্চ এর ঘরে সার্চ কী ওয়ার্ড-টি টাইপ করে এবং সার্চ বাটন এ ক্লিক করে সার্চ এর রেজাল্ট পেজ এর জন্য অপেক্ষা করে।মুশকিল হল যখন কেউ সার্চ করে তখন সে তার নিজের ইচ্ছা মত কী-ওয়ার্ড টাইপ করে দেয় এবং বিভিন্ন সার্চ ইঞ্জিন তার সাথে সম্পর্কিত ওয়েবসাইট এর লিঙ্ক গুলো সার্চ রেজাল্ট পেজ এ দেখায়।

যেমন আমাদের আলোচ্য কম্পিউটার ওয়েবসাইট এর কী-ওয়ার্ড সার্চ কারি এই ভাবে সার্চ করতে পারে কম্পিউটার কিনব(যে খানে আমাদের মুল কী ওয়ার্ড হল কম্পিউটার কিনতে চাই)আবার কেউ কেউ এই ভাবে টাইপ করতে পারে কম্পিউটার বিক্রি করব (যে খানে আমাদের মুল কী ওয়ার্ড হল কম্পিউটার বিক্রয় করতে চাই)আপনি আপনার ওয়েবসাইট এ কনটেন্ট লিখার সময় যে কী ওয়ার্ড দিবেন একজন বাবহারকারি ঠিক সেই ভাবেই সার্চ করবে এইটা ভাবার কোন কারন নাই।এই বাপারে আমারা পড়ে বিস্তারিত শিখব।

ওয়েব সার্চ কারিরা অন-লাইন এ যে সার্চ পক্রিয়া চালায় তা দুই ক্যাটেগোরিতে ভাগ করা যেতে পারে।প্রথম টাকে বলা হয় Drill Down যেখানে ওয়েব সার্চকারি কোন সাবজেক্ট নিয়ে রিসার্চ করে।এই টাইপ এর সার্চকারি কোন নির্দিষ্ট টপিক এর হাব বা অথরিটি কে খোঁজে এবিং এ ক্ষেত্রে তারা বার বার সার্চ এর রেজাল্ট পেজ এ ফিরে আসে না ।তারা প্রতমে কিছু অথরিটি সাইট কে খুজে বের করে এবং পড়ে উক্ত সাইট এর লিঙ্ক গুলো কে ব্যবহার করে।যদি কারো ওয়েবসাইট এক্ষেত্রে শীর্ষ কোন হাব না হয় তবে তার সাইট এ একটি অথরিটি লিংক রাখা উচিত।অধিকাংশ পাওয়ার সার্চ গুলো এই ভাবে ঘটে থাকে।

দ্বিতীয় সার্চ টাইপ টি টার্গেট সার্চ হিসসাবে পরিচিত।এক্ষেত্রে সারফার গন কোন সু নির্দিষ্ট বাক্তি বা প্রোডাক্ট এর জন্য সার্চ ইঞ্জিন গুলো ব্যবহার না করে উল্লেখিত টপিক সংশ্লিষ্ট ওয়েবসাইট সার্চ অপারাশন পরিচালনা করে।যেমন ধরা যাক এই ওয়েব সাইট এর ইউআরএল(URL)যদি কেও ভুলে যায় তবে সে গুগল অথবা ইয়াহু সার্চ ইঞ্জিন এ শুধু “InstaBangla”লিখে সার্চ দিলে এই ওয়েবসাইট এর লিংক পাবে।এই ব্যাপার টা ঘটে যখন কেউ কোন নির্দিষ্ট ওয়েবসাইট এর অ্যাড্রেস ভুলে যায় তখন।

২। বিভিন্ন সার্চ ইঞ্জিন সমুহঃ

আমারা জানি সার্চ এর কাজ করা হয় বিভিন্ন সার্চ ইঞ্জিন এর সাহায্যে।পৃথিবীব্যাপী অসংখ্য সার্চ ইঞ্জিন রয়েছে তার মধ্যে মাত্র কয়েক টি গুরুত্বপূর্ণ।আপনার সাইট এর SEO এর বিভিন্ন ধাপ যদি মেজর সার্চ ইঞ্জিন গুলোর প্রয়জনিয়তার সাথে ম্যাচ না করে তবে কিছুতেই আপনার সাইট টি অন-লাইন এ জনপ্রিয় হবে না।অধিকাংশ মানুষ সার্চ ইঞ্জিন হিসাবে গুগল কে ব্যবহার করে এর পড়ে রয়েছে ইয়াহু এবং এর পড়ে রয়েছে বিং সার্চ ইঞ্জিন।

এবার আসুন দেখে নেওয়া যাক কোন সার্চ ইঞ্জিন এর ব্যবহার কারি কত?

১। গুগল-৭৮.৪৩%,২। ইয়াহু-৯.৭৩%,৩। বিং-৭.৮৬%,৩। সার্চ এর Result পেজঃ

বিভিন্ন সার্চ ইঞ্জিন এ সার্চ দেবার পর কম্পিউটার এর জন্য যে ওয়েব সাইট গুলো রয়েছে তার একটা তালিকা পাওয়া যায়।SEO এর এই ধাপ এর লক্ষ্য হল টার্গেট সাইট কে যত উপর এর দিকে প্লেস করা যায়।সাইট যত অপটিমাইজড হবে সার্চ রেজাল্ট এ অবস্থান তত উপর এর দিকে হবে।একই সাথে অবস্থান যত উপর এ হবে এর ভিজিটর পাওয়ার সম্ভবনা তত বেশি।এই ব্যাপারে আমরা পড়ে শিখব।

৪। সার্চ ইঞ্জিন এর মাধ্যমে সাইট আসা ওয়েব ট্রাফিক তথা ইউজার ফিডব্যাকঃ

সার্চ ইঞ্জিন এ সার্চ করে লিংক পাওয়ার পর কোন সাইট এ ভিজিটর আসা হল ওয়েব ট্রাফিক।যদিও অধিকাংশ সার্চ ইঞ্জিন এই ব্যাপারে তেমন মুখ খলে না তারপরেও দেখা যায় যে এদের এইটা পরিমাপ করার বিভিন্ন সিস্টেম আছে।এর মাধ্যমে সাইট রাংকিং করা হয়।এই জন্য সকল ওয়েব মাস্টার এর উচিত কেবল সার্চ ইঞ্জিন স্পাইডার এর জন্য ওয়েব সাইট তৈরি না করে হিউম্যান ভিজিটর এর জন্য নজর দিয়ে সাইট তৈরি করা।ওয়েবসাইট এ ট্রাফিক আনার জন্য অনেক ওয়েব মাস্টার সাইট কে রবোটিক বানিয়া ফেলে।যা কখনয় স্থায়ী ভাল ফলাফল বয়ে আনে না।এটি একটি খারাপ অনুশীলন এবং এর মাধ্যমে প্রাথমিক একটি প্রতক্ষ পজেটিভ ফলাফল আসলেও সাইট এর দীর্ঘ সময় টিকে থাকার জন্য হুমকি তৈরি করে।

Leave a Comment