আসুন জানি কেন আমরা আমাদের ওয়েবসাইটে ক্লাউড হোস্টিং ব্যাবহার করব

একটি ওয়েবসাইট এর প্রান বলা চলে সেই ওয়েবসাইট যে হোস্টিং এ আছে সেই হোস্টিং কে।কিন্তু একজন নতুন ওয়েবসাইট এর মালিকের পক্ষে এই সিদ্ধান্ত নেওয়া অনেক কষ্টকর ব্যাপার হয়ে যায় যে তার ওয়েবসাইট এর জন্য কি ধরনের ওয়েব হোস্টিং এর প্রয়োজন পড়বে।আজকের এই আর্টিকেলে আমরা ক্লাউড হোস্টিং সম্পর্কে প্রাথমিক ধারনা দেওয়ার চেষ্টা করব।আম্র এই আর্টিকেলে জানবো কেন আমারা আমাদের ওয়েবসাইট এর জন্য ক্লাউড হোস্টিং সার্ভার ব্যাবহার করব বা কেন আমাদের ওয়েবসাইট ক্লাউড হোস্টিং সার্ভারে রাখা প্রয়োজন।ক্লাউড হোস্টিং ব্যাবহার বিভিন্ন দিক নিয়ে আলোচনা করব।তাহলে আর এসব কথা না বাড়িয়ে চলুন মূল বিষয়ে আলোচনা শুরু করা যাক।

আমরা যারা অনলাইন প্রফেসনালে আছি তাদের সবারই কম বেশী এবং অন্তত পক্ষে একটি হলেও ওয়েবসাইট আছে।আর ওয়েবসাইট চালু করতে গেলেই আমাদের প্রয়োজন পরে সার্ভার এর।আর এই সার্ভার বিভিন্ন রকমের হয়ে থাকে।যেমন শেয়ার হোস্টিং,ভিপিএস হোস্টিং,ডেডিকেটেড হোস্টিং,এবং ক্লাউড হোস্টিং।আমরা আজকে জানবো ক্লাউড হোস্টিং সম্পর্কে।

আপনার ওয়েবসাইট যদি একদম নতুন হয়ে থাকে এববগ আপনার ভিসিটর এর সংখ্যা অনেক কম হয়ে থাকে তাহলে আপনি শেয়ার হোস্টিং ব্যাবহার করতে পারেন।কারন আমাদের ওয়েবসাইট এর প্রধান লক্ষ্যই থাকে ওয়েবসাইট থেকে বিভিন্ন ধরনের অ্যাড থেকে রেভিনিউ নিয়ে আসা।কিন্তু প্রথম দিকেই যদি আপনার আয় থেকে খরচ বেড়ে যায় তাহলে আপনার লক্ষ্য বাস্তবায়ন হবে না।যেকোনো শেয়ার হোস্টিং এ আপনি ২৫০০-৩০০০ ভিসিটর লোড নিতে পারে,কিন্তু আপনার ওয়েবসাইট এর ভিসিটর এর থেকে বেশী হয়ে গেলে তখন আপনাকে হোস্টিং প্যাকেজ পরিবর্তন করে নিতে হবে।এই পরিবর্তন করে আপনি অন্য কোন হোস্টিং পাকেজে চলে যেতে পারেন।যেমন আপনি বর্তমান হোস্টিং প্যাকেজ থেকে ক্লাউড হোস্টিং এ আপনার ওয়েবসাইট ট্রান্সফার করে নিতে পারেন।

এখন আমরা জানবো কেন আমরা ক্লাউড হোস্টিং ব্যাবহার করব?আমরা আমাদের ওয়েবসাইট এর প্যাকেজ পরিবর্তন করছি কারন আমাদের ওয়েবসাইট এর ভিসিটর বেড়েছে।যদি আপনার ওয়েবসাইট এর ভিসিটর এর সংখ্যা ৪-৫ হাজ্র হয়ে থাকে তাহলে আপনি ক্লাউড হোস্টিং ব্যাবহার করতে পারবেন।কারন এছারা আপনার আর কোন উপায় থাকবে না।যদি এই পরিমান ভিসিটর নিয়ে আপনি শেয়ার হোস্টিং ব্যাবহার করেন আপনার ওয়েবসাইট ডাউন হয়ে অফলাইন হয়ে যাবার সম্ভবনা আছে।আর এই ওয়েবসাইট অফলাইন থেকে বাঁচতে হলে আপনাকে ক্লাউড হোস্টিং ব্যাবহার করতে হবে।এই ছিল আজকের আর্টিকেল এর মূল বিষয়।আশা করছি আপনি আর্টিকেল টি বুঝতে পেড়েছেন।আমরা কেন আমাদের ওয়েবসাইটে ক্লাউড হোস্টিং ব্যাবহার করব এই নিয়ে আপনার কাছে কোন তথ্য থাকলে তা এই পোস্ট এর নিচে মন্তব্য করে জানাতে ভুল্বেন না।আপনার দেওয়ার তথ্য উপযুক্ত হলে তা আমরা এই আর্টিকেল এর সাথে সংযুক্ত করে দিব।

Leave a Reply

Your email address will not be published.