কম্পিউটার এর মাউস কিভাবে কাজ করে?মাউস নিয়ে বিস্তারিত আর্টিকেল

আপনি যখন এই পোস্ট পড়ছেন তখনও হয়ত আপনার হাত আপনার কম্পিউটার এর মাউস এর উপরেই আছে,যার সাহায্যে আপনি এই পোস্ট স্ক্রল করে নিচের দিকে জাচ্ছেন।আচ্ছা কখনও কি আপনার মনে প্রশ্ন জেগেছে যে এই যন্ত্র কিভাবে সুধুমাত্র একটি তার এর মাধ্যমে আমাদের কম্পিউটার এর সাথে যুক্ত হয়ে কমান্ড গুলো কম্পিউটারে পাঠায়?আর আপনার মনের ভেতর এই প্রশ্ন আস্লেও আপনি কি জানতে পেড়েছেন যে কিভাবে আমাদের কম্পিউটার এর মাউস নামক যন্ত্রটি কাজ করে।যদি না জানতে পারেন তাহলে আজকের এই আর্টিকেল সুধুই আপনার জন্য।আমাদের কম্পিউটার এর মাউস কিভাবে কাজ করে তা জানতে হলে এই আর্টিকেল একেবারে শেষ পর্যন্ত পড়তে হবে।

আমাদের কম্পিউটার মাউস কিভাবে কাজ করে এটা জানার আগে আমাদের জানতে হবে মাউস কত প্রকার ও কি কি?মাউস প্রধানত দুই প্রকার এর হয়ে থাকে,অপটিক্যাল মাউস এবং মেকানিক্যাল মাউস।আলোক রশ্মি ব্যাবহার করে মাউস এর নাড়াচাড়া সংক্রান্ত তথ্য বিশ্লেষণ করে কম্পিউটারে নির্দেশ পাঠানো হয়।এর জন্য এলইডি বাল্ব ব্যাবহার করা হয়।অপটিক্যাল এবং মেকানিক্যাল দুই ধরনের মাউস এই এলইডি বাল্ব থাকে।বর্তমান সময়ের মাউস যেকোনো সমতল জায়গায় রেখে ব্যাবহার করা যায়।শুধু মাত্র স্বচ্ছ সমতল জায়গা ছাড়া।যেমন কাঁচের উপর রেখে আপনি মাউস ব্যাবহার করতে পারবেন না।

অপটিক্যাল মাউস কে আমরা একটি উচ্চ গতির এবং ক্ষমতা সম্পন্ন ক্যামেরার সাথে তুলনা করতে পারি।একটি এলইডি থেকে আপনি যে সমতল জায়গায় আপনার মাউস রাখেন সেই জায়গায় আলো ফেলা হয়।এবং এই আলর মাধ্যমে আপনার কম্পিউটার এর মনিটরের ছবি তোলা হয়।একটি মাউস প্রতি সেকেন্ডে প্রায় ১৫০০ এর অধিক ছবি তুলতে সক্ষম।এবং সেই ছবি বিশ্লেষণ করে আপনার কম্পিউটারে নির্দেশ পাঠানো হয়।ছবি তলার কাজ এত দ্রুত সম্পন্ন করা হয় যে আপনি যদি আপনার মাউসকে প্রতি সেকেন্ডে ১৬ থেকে ৪০ ইঞ্ছিও সরে নিয়ে যান তবুও আপনার মাউস সঠিকভাবে কাজ করতে পারে।আর এই কারনেই আপনি যদি আপনার মাউস আপনার হাতের তালুর উপর নিয়ে নাড়াচাড়া করেন তবুও এটি সঠিক ভাবে কাজ করে।

আপনি হয়ত দেখে থাকবেন বেশিরভাগ কম্পিউটার মাউস এর এলইডি বাল্ব এর রঙ লাল হয়ে থাকে।কিন্তু কেন?আরও অন্যান্য রঙ থাকার পরেও কেন লাল রঙ কে মউসের জন্য নির্ধারণ করা হল?কারন লাল আলো তৈরি করতে সব চেয়ে কম খরচ আর লাল রঙ ফটো-সেন্সর বা ফটো ডায়োড এ সব চাইতে ভালো কাজ করে।সেই জন্যই মউসের এর এলইডি এর রঙ লাল রাখা হয়।এছারা নীল আলো ব্যাবহার করেও অপটিক্যাল মাউস তৈরি করা হয়।আবার লেজার রশ্মি ব্যাবহার করেও উচ্চ গতিসম্পন্ন অপটিক্যাল মাউস তৈরি করা হয়।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *