আপনার ওয়ার্ডপ্রেস ওয়েবসাইট ফাস্ট রাখার কিছু কৌশল!

বিশেষ করে ওয়ার্ডপ্রেস ওয়েবসাইট আমাদের কিছু সমস্যার কারণেই স্লো হয়ে যায়। কিন্তু আমরা জানি যে ওয়েবসাইট স্লো হলে একটা ওয়েবসাইটের মারাত্মক ক্ষতি হয়ে যায়। সেই ওয়েবসাইটের অনেক কিছু হারাতে হয় শুধুমাত্র ওয়েবসাইট স্লো হওয়ার কারনে। তাই আমি আজকের আর্টিকেলে কিভাবে ওয়েবসাইটকে ফাস্ট রাখা যায় সেটা নিয়ে আলোচনা করব। তো আশা করি সবাই শুরু থেকে শেষ পর্যন্ত আমার এই আর্টিকেলটি পড়বেন। আর যদি এরকম কোন সমস্যায় পড়ে যান তাহলে কমেন্ট বক্সে কমেন্ট করবেন। আমি সঠিক উত্তর দিয়ে আপনাদের সহযোগিতা করব।

ওয়ার্ডপ্রেস বর্তমান সময়ের তুমুল জনপ্রিয় একটি সিএমএস। বা যেটাকে আমরা কনটেন্ট ম্যানেজমেন্ট সিস্টেম বলে থাকি। বর্তমানে প্রায় ৮০ পার্সেন্ট ব্যবহারকারীর ওয়েবসাইট রয়েছে ওয়ার্ডপ্রেস দ্বারা তৈরি করা। কিন্তু আমাদের নিজেদের কিছু সমস্যার কারণে আমাদের ওয়েবসাইট স্লো হয়ে যায়। যার জন্য অনেক সমস্যার সম্মুখীন হতে হয়। এখন আমি বলব আপনাদের কিছু টিপস যা ঠিকভাবে করতে পারলে আপনাদের ওয়েবসাইট রকেটের মতন ফাস্ট থাকবে।

প্রথমেই বলি ওয়েব হোস্টিং নিয়ে। ওয়েবসাইট ফাস্ট এর জন্য ওয়েব হোস্টিং অনেক গুরুত্বপূর্ণ অবদান রাখে। যদি আপনার হোস্টিং এর কারণে ওয়েবসাইট ডাউন হয়ে যায়। তাহলে আপনি কোন কিছুর মাধ্যমে ওয়েবসাইটকে ফাস্ট করতে পারবেন না। তাই পোস্টিং দেওয়ার আগে অবশ্যই আপনি ভালো করে হোস্টিং এর মধ্যে ওয়েবসাইট লোড করুন। যাতে অনেক ফার্স্ট থাকে ওয়েবসাইট। আবার আপনি যদি শেয়ার্ড হোস্টিং ব্যবহার করে থাকেন। এবং আপনার ওয়েব সাইটের ভিজিটর যদি একটু বেশি পরিমাণে থাকে। ভালো ওয়েবসাইট একটু ডাউন হতে পারে। তাই তিন থেকে চার হাজার ভিজিটর যদি থাকে সাইটে। তাহলে সে শেয়ার্ড হোস্টিং আপডেট করে ভালো কোন হোস্টিং এরমধ্যে আমি যেতে বলব। মানে ভালো হোস্টিং ভালোই স্পিড এক কথায়।

এরপর ভারী থিম ইউজ করে যারা সাইট ব্যবহার করে। সেসব ওয়েবসাইট স্লো হতে পারে। কারণ আপনার ব্যবহার করা হোস্টিং অনুযায়ী যদি ভারী থিম ব্যবহার করেন তাহলে ওয়েবসাইট ডাউন হবে এটা স্বাভাবিক। তাই আমি বলব ভালো কোন থিম ব্যবহার করতে। যেসব থিমের কোডিং গুলো অনেক ভালো। এবং স্টাইলিশ হালকা। সেসব থিম ব্যবহার করবেন। তাহলে আপনাকে থিম এর জন্য সাইট ডাউন থাকবেনা। বা থিম এর জন্য সাইট ধীরগতি হয়ে থাকবে না।

কনটেন্ট ডেলিভারি নেটওয়ার্ক ব্যবহার করা। আজকালকের প্রায় সকল সাইট এই কনটেন্ট ডেলিভারি নেটওয়ার্ক ব্যবহার করে থাকে। যেটা আমিও ব্যবহার করে থাকি। কনটেন্ট ডেলিভারি নেটওয়ার্ক বা সিডিএন। এটা ব্যবহার করার কারণে আপনার সাইটের সকল ডাটা ওই ওয়েবসাইটে ক্যাশ করে রাখে। আবার ভিজিটর যখন সাইটে ভিজিট করে তখন ভিজিটরের লোকেশন থেকে ওই ডাটা গুলো ভিজিটরকে দেখায়। ফলে মেইন সার্ভারের চাপ কম পড়ে। এবং ওয়েবসাইট ফাস্ট থাকে। আর এই পদ্ধতি করার জন্য আপনি ক্লাউডফ্লেয়ার য়ার ব্যবহার করতে পারেন। সি ডি এন এর জন্য আপনি এটি ফ্রী ব্যবহার করতে পারবেন।

বিভিন্ন ক্যাশ প্লাগিন ব্যবহার। বিভিন্ন ক্যাশ প্লাগইন ব্যবহার করা যায়। এ ক্যাশ প্লাগইন ব্যবহার করার ফলে আপনার ওয়েবসাইটকে দুর্দান্ত ফাস্ট করতে পারবেন। বিশেষ করে আপনি যদি লাইটস্পিড সার্ভার সফটওয়্যার ব্যবহার করে থাকেন। তাহলে লাইটস্পিড এর একটি ক্যাশ প্লাগিন হয়েছে। সেই প্লাগিনটি ব্যবহার করলে আর বেশি কিছু করার প্রয়োজন নেই। আশাকরি আপনারা এরকম নিয়ম অনুসারে কাজ করবেন। এবং আপনাদের ওয়েবসাইটে দুর্দান্ত ফাস্ট করবেন। ধন্যবাদ সময় নিয়ে আর্টিকেলটি পড়ার জন্য।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *